Sunday , 19 November 2017

হ্যাকিং ট্রিকস: জেনে নিন কিভাবে লুকানো পাসওয়ার্ড বের করবেন

Loading...

হ্যাকিং ট্রিকস: জেনে নিন কিভাবে লুকানো পাসওয়ার্ড বের করবেন

Screenshot (2)

Loading...

 

আসসালামু আলাইকুম। কেমন আছেন সবাই। নিশ্চয়ই ভাল। অনেক দিন ধরে কোন পোষ্ট করার সময় পাচ্ছি না। তাই আপনাদের সাথে দেখা সাক্ষাতও হচ্ছে না। গত কয়েকদিন ধরেই পাসওয়ার্ড নিয়ে অনেকেই আমার ফেসবুক আইডিতে ম্যাসেজ পাঠিয়েছিলেন। মূলত আমার ফেসবুক শুভাকাঙ্খিদের জন্যই আজকের এই দারুন পোষ্টটি উপহার দিলাম।

 

আপনি নিশ্চয়ই লক্ষ্য করে থাকবেন যে, যেকোন সাইটের অ্যাকাউন্টে লগিন করতে গেলে পাসওয়ার্ড লেখার ঘরে পাসওয়ার্ড লিখলে তা সাধারনত গোল কালো চিহ্নের মাধ্যমে লুকানো থাকে।

এতে পাসওয়ার্ড টাইপিং এর সময় পাসওয়ার্ড টেক্সট আকারে দেখা যায়না। সাধারনত সব সাইটের পাসওয়ার্ড লেখার ফিচারই এটি। আজ আপনাদের সাথে শেয়ার করবো এই লুকানো পাসওয়ার্ড কিভাবে টেক্সটে কনভার্ট করে দেখা যায় সেই পাসওয়ার্ডটিতে কি লেখা আছে। যাদের এইচটিএমএল সম্পর্কে কিছু ধারনা আছে তাদের এটি শেখানোর কিছু নেই। যারা একদম নতুন শুধুমাত্র তারাই এটি দেখুন।

ছোট একটি এইচটিএমএল ট্যাগ পরিবর্তন করে দিয়েই বের করা সম্ভব এই লুকায়িত পাসওয়ার্ড। আপনি হয়তো ভাবতে পারেন নিজের দেয়া পাসওয়ার্ড নিজে দেখে কি লাভ????? লাভ আছে। কারন এটি এক প্রকার হ্যাকিং। হয়তো এখন আপনার কাজে না লাগলেও ভবিষ্যতে যেকোন সময় কাজে লাগবেই লাগবে। তাই চলুন কথা না বাড়িয়ে হ্যাকিংটা শিখে নেই।

 

  • ব্রাউজারে কাঙ্ক্ষিত লুকায়িত পাসওয়ার্ড -এর উপর মাউসের কার্সর রেখে রাইট ক্লিক করুন এবং তারপর Inspect Elementক্লিক করুন।

  • নিচে একটি ঘর আসবে। সেখানে যে কোডগুলো আসবে তাতে আপনি type=”password” এইচটিএমএল ট্যাগটি মার্ক করা অবস্থায় দেখতে পারবেন।’

  • এবার শুধু type=”password” ট্যাগটির বদলে type=”text” দিয়ে বাহিরে যেকোন ফাঁকা স্থানে মাউসের একটি সিঙ্গেল ক্লিক করলেই দেখবেন লুকায়িত পাসওয়ার্ডে কি লেখা ছিল তা দেখা যাচ্ছে। অর্থাৎ password লেখাটা চেন্জ করে সেখানে text লিখে বাহিরে খালি স্থানে ক্লিক করুন। ছবিতে দেখুন। ছবির মত করতে হবে।

যারা HTML আগেই কিছু কিছু জানেন তাদের কাছে এটি পুরোনো ট্রিকস। তবে আমি বিশ্বাস করি নতুনদের জন্য এটি অনেক আগ্রহ উদ্দীপক । তাই নয় কি??? পোষ্টটি পড়ে আপনার ভাল লাগে তাহলে অবশ্যই এই পোষ্টটি আপনার ফেসবুক ওয়ালে শেয়ার করবেন। আপনার মত আরো অনেকেই বিষয়টি শিখতে পারবে। আগ্রহ হবে এইচ টি এম এল শিখার। আর এভাবেই আমাদের দেশেও তৈরী হবে ভাল মানের ওয়েব ডিজাইনার। আর এই ওয়েব ডিজাইনার এর প্রথম হাতে খড়ি যদি আমি হতে পারি, তাহলে সেটি আমার জন্য হবে অনেক বড় পাওয়া। অনেক বড় আনন্দের।  ধন্যবাদ।

Facebook Comments

Leave a Reply